নদী গর্ভে বিলীন হওয়ার আশংকায় সন্দ্বীপের চৌকাতলী ৬ নং ওয়ার্ড

মো.সাজ্জাদ হোসাইন:
___________________________
নদীরে ও নদীরে তুই একটু দয়া কর, ভাঙ্গিস না আর বাপের ভিটা বসত বাড়ি-ঘর। শিল্পী আব্দুল আলীমের গানের ভাবার্থ যেনো ভাবিয়ে তুলছে চট্টগ্রামের দ্বীপ উপজেলা সন্দ্বীপের চৌকাতলী ৬নং ওযার্ডের বাসিন্দাদের কে। দক্ষিণ সন্দ্বীপের ইউনিয়ন সারিকাইত। এই ইউনিয়নের চৌকাতলী ৬নং ওয়ার্ড সন্দ্বীপের একেবারে দক্ষিণ-পূর্ব সাগরের তীরে অবস্থিত। ওই এলাকায় নেই কোনো ভেড়িবাঁধ। সামান্য জোয়ার আসলেই আশেপাশের বাড়ি-ঘর ডুবে যায়। সেই সাথে বর্তমান আবহাওয়ার কারণে ওই এলাকায় আরো বেশি নাঁজুক পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। গত কিছু দিনের দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ায় ওই এলাকার প্রায় ১-২ কিলোমিটার জায়গা মারাত্মক ভাঙ্গনের শিকার হয়েছে। রাস্তাঘাট, বাড়িঘর, ফসলি জমিসহ সব কিছু ভেঙ্গে নদীর পানি ঢুকে পড়েছে। সেই সাথে মেঘনা নদীর পানি বেড়ে যাওয়ার কারণে ভাঙ্গন আরো বেশি তীব্র হচ্ছে। ওই এলাকায় ভাঙ্গনের ঝুঁকিতে আছে মসজিদ, মাদ্রাসা, প্রাথমিক বিদ্যালয় সহ প্রায় ২০০ টিরও বেশি পরিবার। গত কিছুদিনের নদীর ভাঙ্গনে বসত ভিটে ছাড়তে হয়েছে প্রায় ১৫-২০ পরিবারের। এভাবে যদি নদী ভাঙ্গতে থাকে তাহলে, খুব শীঘ্রই চৌকাতলী ৬নং ওয়ার্ড নদীতে বিলীন হয়ে যেতে পারে, এমন আশংকা করছেন স্থনীয়রা।

বন্যার মারাত্মক ঝুঁকিতে আছেন ওই এলাকার প্রায় হাজার খানেক মানুষ। তারা স্থানীয় ও সন্দ্বীপের জনপ্রতিনিধিদের কাছে শীঘ্রই নদী ভাঙ্গন রোধকল্পে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য তীব্র দাবি জানিয়েছেন। স্থানীয় এলাকাবাসির অভিযোগ, দীর্ঘ দিন ধরে ওই এলাকায় ভেড়িবাঁধ নির্মানে কোনো উদ্যোগ না নেয়ার কারণেই, এমন পরিস্থিতিতে শিকার হতে হচ্ছে বারবার। স্থানীয় ও উপজেলা জনপ্রতিনিধিদের কাছে বারবার দাবি জাননোর পরও কোনো উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে না। এই অবস্থায় তারা তাদের বসত ভিটা হারিয়ে ফেলার আশংকা করছেন।
মো.ইয়াকুব নামের স্থানীয় এক ব্যাক্তি বলেন, এখানে নদীভাঙ্গন রোধকল্পে জনপ্রতিনিধিরা ব্যবস্থা নেয়ার কথা অনেকবার প্রতিশ্রুতি দিলেও বাস্তবে কোনো কাজ করছে না।

উল্লেখ্য, চৌকাতলী ৬নং ওয়ার্ড থেকে মাত্র ১-২ কিলোমিটারের দূরত্বে অবস্থিত দক্ষিণ সন্দ্বীপের অন্যতম শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান কাজী আফাজ উদ্দীন উচ্চবিদ্যালয়। যদি নদী ভাঙ্গনরোধে কোনো উদ্যোগ গ্রহণ না করা হয়, তাহলে ক্ষতির মুখোমুখি হতে পারে বিদ্যালয় সহ নানা গুরুত্বপূর্ণ জায়গাগুলো।

চট্টগ্রামের দ্বীপ উপজেলা সন্দ্বীপ ধীরে ধীরে উন্নত হচ্ছে। জনজীবনের মানোন্নয়নে জাতীয় গ্রিডের বিদ্যুৎ ব্যবস্থা করা সহ আরো নানা উন্নয়ন হচ্ছে এই উপজেলাটিতে। কিন্তু এই উপজেলাটি দীর্ঘ দিন ধরে নদী ভাঙ্গনের শিকার। নদী ভাঙ্গন এই উপজেলার জন্য মারাত্মক হুমকির কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। অতীতে নদীভঙ্গন রোধ করতে কোনো উদ্যোগ না নেয়ার কারণে, কয়েকটি ইউনিয়ন সহ নানান গুরুত্বপূর্ণ সম্পদ হারিয়েছে সন্দ্বীপের মানুষ। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে দেশের সম্পদ, সাধারণ জনগনের সম্পদ, নিঃস্ব হয়েছে শত শত পরিবার। করুণ পরিণতিতে শিকার হতে হয়োছিলো মানুষদেরকে। আরো হারিয়েছে সন্দ্বীপের শত অতিহ্য। সন্দ্বীপ কি এভাবে ভাঙ্গতে থাকবে? প্রশ্ন থেকে যায় সন্দ্বীপের অভিবাবকের দায়িত্ব পালন কর্তাদের কাছে।

সন্দ্বীপে সবার আগে নদী ভাঙ্গন রোধে কাজ করতে হবে এবং চারপাশে শক্ত ভেড়িবাঁধ নির্মান করার দাবি জানান, সন্দ্বীপ রিয়েল স্টার ক্লাবের সভাপতি মো. শোয়াইব।


এ বিভাগের আরো খবর...
উড়িরচরে সাহায্যের নামে প্রতারণার অভিযোগ উড়িরচরে সাহায্যের নামে প্রতারণার অভিযোগ
প্রধানমন্ত্রীর বাড়িতে যেতে পারলেও যেতে পারেনি নিজ বাড়ি সন্দ্বীপে ! প্রধানমন্ত্রীর বাড়িতে যেতে পারলেও যেতে পারেনি নিজ বাড়ি সন্দ্বীপে !
পিকনিক প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত পিকনিক প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত
চলো যাই বঙ্গোপসাগরের বুকে সন্দ্বীপে চলো যাই বঙ্গোপসাগরের বুকে সন্দ্বীপে
কালিগঞ্জে পাঁচ বছর বয়সের শিশু কন্যা ধর্ষণ যুবক আটক কালিগঞ্জে পাঁচ বছর বয়সের শিশু কন্যা ধর্ষণ যুবক আটক
কালিগঞ্জ পুলিশের অভিজানে তিনজন মাদকসেবী আটক কালিগঞ্জ পুলিশের অভিজানে তিনজন মাদকসেবী আটক
কালিগঙেও কুশুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদে ভি জি এফ কার্ডের চাউল বিতারণ কালিগঙেও কুশুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদে ভি জি এফ কার্ডের চাউল বিতারণ
পাঁচবিবিতে ১৪ দল জঙ্গীবাদ দমন ও সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে মানব বন্ধন ও সমাবেশ করেছে পাঁচবিবিতে ১৪ দল জঙ্গীবাদ দমন ও সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে মানব বন্ধন ও সমাবেশ করেছে
চিরিরবন্দরে শিশু ও মাতৃ মৃত্যু রোধে মাঠ পর্যায়ে মিডওয়াইফদের পরিচিতি সভা চিরিরবন্দরে শিশু ও মাতৃ মৃত্যু রোধে মাঠ পর্যায়ে মিডওয়াইফদের পরিচিতি সভা

নদী গর্ভে বিলীন হওয়ার আশংকায় সন্দ্বীপের চৌকাতলী ৬ নং ওয়ার্ড
(সংবাদটি ভালো লাগলে কিংবা গুরুত্ত্বপূর্ণ মনে হলে অন্যদের সাথে শেয়ার করুন।)
tweet

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)