শিল্প সাহিত্য নিয়ে অরাজকতা

---
শিল্প সাহিত্য নিয়ে অরাজকতার সুত্রপাত অনেক আগে থেকে।অনলাইন ম্যাগাজিন এবং ফেসবুক আসার অনেক আগে থেকে দূষণের শুরু।দৈনিকের সাহিত্যপাতা ও শিশুসাহিত্যপাতার বিভাগীয় সম্পাদকদের গোষ্ঠিপ্রীতি,স্বজনপ্রীতি,বন্ধুপ্রীতি, পরিচিতিপ্রীতি এবং অতিমাত্রায় তেলাকাঙ্খা, নিরপেক্ষ মানবিচার মানসম্পন্ন রচনার যথাযথ মুল্যায়ণের পথকে বহু আগেই নষ্ট করে ফেলেছে। ব্যতিক্রম যে ছিলনা বা নেই তা বলা যাবেনা। তারপরও এখনো পর্যন্ত প্রিন্ট মিডিয়া-ই শিল্প সাহিত্যের ভরসার মুল জায়গা।যেটুকু অরাজকতা, বিশৃংখলা ও স্বেচ্ছারিতা বিদ্যমান আছে, সেগুলোতে নতুন মাত্রা যোগ করেছে ফেসবুক ও অনলাইন ভিত্তিক সাহিত্য তৎপরতা।তাৎক্ষণিক যুক্তিহীন,গভীর বিবেচনা বহির্ভুত আবেগনির্ভর প্রতিক্রিয়া, উচ্ছ্বাস, লেখকের,বিশেষ করে নবাগত লেখকের কমিটমেন্টের জায়গাটিকে ঠুনকো করে দিচ্ছে।লেখকের সীমাবদ্ধতা ও স্খলন গুলো থেকে যাচ্ছে অচিন্হিত।সংশ্লিষ্ট লেখক মনে করবার সুযোগই পাচ্ছেন না যে- লেখালেখিটা সাধনা, অধ্যবসায় ও অনুশীলনের জায়গা।

লেখক- আবদুল মতিন রিপন
কবিও ছড়াকার।


এ বিভাগের আরো খবর...
আজকাল মানুষ গ্রাম ছেড়ে শহর মুখি আজকাল মানুষ গ্রাম ছেড়ে শহর মুখি
মাঝে মাঝে অতিরিক্ত ইগো তোমাকে জিততে দিবে না….. মাঝে মাঝে অতিরিক্ত ইগো তোমাকে জিততে দিবে না…..
আমি যখন হিংসার আগুনে জ্বলে উঠি আমি যখন হিংসার আগুনে জ্বলে উঠি
চোখ বন্ধ করে চিন্তা করলেই ভ্যাট” চোখ বন্ধ করে চিন্তা করলেই ভ্যাট”
পানি ডানহাতে খাওয়া ভালো, মসজিদ তো! পানি ডানহাতে খাওয়া ভালো, মসজিদ তো!
যে দেশে দোতলা থেকে নিচতলায় পোঁছতে ২০ টাকা ১০ টাকা হয়ে যায় যে দেশে দোতলা থেকে নিচতলায় পোঁছতে ২০ টাকা ১০ টাকা হয়ে যায়
উৎসাহ পেলে মন্দ গুলোও ধীরেধীরে ভালো হয়ে যাবে উৎসাহ পেলে মন্দ গুলোও ধীরেধীরে ভালো হয়ে যাবে
পাঠকের ওয়াল থেকে পাঠকের ওয়াল থেকে

শিল্প সাহিত্য নিয়ে অরাজকতা
(সংবাদটি ভালো লাগলে কিংবা গুরুত্ত্বপূর্ণ মনে হলে অন্যদের সাথে শেয়ার করুন।)
tweet

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)